পিএইচজি হাইস্কুলে অগ্নিকান্ডের প্রতিবাদে শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের মানববন্ধন ও র‌্যালী 

pic
pic

স্টাফ রিপোর্টার : বিয়ানীবাজারের প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীট পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ মডেল উচ্চ বিদ্য্লায়ের অফিস কক্ষে দুর্বৃত্তদের অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের প্রতিবাদে স্মরণকালের বৃহৎ মানববন্ধন ও র‌্যালী অনুষ্টিত হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষক শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পৌরশহরে অনুষ্টিত হয় এই মানববন্ধন ও র‌্যালী। মানববন্ধন ও র‌্যালীতে বিদ্যালয়ের হাজারো শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

প্রায় ৩০ মিনিট ব্যাপী অনুষ্টিত মানববন্ধন শেষে এক বিশাল র‌্যালী পৌরশহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র বর্তমান সরকারের শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এম.পি বরাবর লিখিত স্মারকলিপির অনুলিপি উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খাঁন,নির্বাহী কর্মকর্তা মুঃ আসাদুজ্জামান,থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জুবের আহমদ ও উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা মোঃ মুজিবুর রহমানের নিকট প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপি গ্রহণ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুঃ আসাদুজ্জামান বলেন, বিয়ানীবাজারের ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপীটে যারাই এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে আমরা তাদের ছাড়বো না। তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে তিনি উপস্থিত বিদ্যালয়ের হাজারো শিক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করেন।

DSC
DSC

আর বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খাঁন আয়োজিত মানববন্ধন ও র‌্যালীতে একাত্মতা ঘোষণা করে বলেন, আমিও এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এই বিদ্যালয়ে আগুন দেয়া মানে আমাদের শরীরে আগুন দেয়া। তিনি বলেন, আমাদের এই বিদ্যালয়ে যারা আগুন দিয়েছে তারা কোন রেহাই পাবে না। আমরা তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের ব্যবস্থা করবো।

বিয়ানীবাজারের প্রাচীন এই বিদ্যালয়ে আগুন ও লুটপাটের প্রতিবাদে শিক্ষামন্ত্রীকে দেয়া স্মারকলিপিতে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে বলা হয়, গত ১৪ জানুয়ারী শুক্রবার ভোরে পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে অগ্নিসংযোগ করে বিদ্যালয়ের অডিট সংক্রান্ত নথিসহ গুরুত্বপূর্ণ ফাইলপত্র ও ২টি ল্যাপটপ গায়েব করে যে কালিমা লেপন করা হয়েছে তাতে আমরা মর্মাহত। ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপীটে যারা এই ন্য্াক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। যাতে করে আর কেউ এরকম ঘটনা ঘটাতে না পারে।