ফলোআপ : বিয়ানীবাজারে নিহত রফিকের দাফন সম্পন্ন : অভিযোগ দায়ের

010101সুফিয়ান আহমদ :: চাচাতো ভাইদের হামলায় বিয়ানীবাজারের দুবাগে নিহত বৃদ্ধ রফিকুজ্জামান চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিহতের ময়নাতদন্তের পর রাতেই পারিবারিক গোরস্থানেই তাকে দাফন করা হয়। এদিকে এই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আফিয়া বেগম চৌধুরী বাদী হয়ে বিয়ানীবাজার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। কিন্তু নিহতের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন না থাকায় পুলিশ তা এখনো রেকর্ড করেনি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানা যায়।
এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বিয়ানীবাজার থানার উপপরিদর্শক প্রভাকর চন্দ্র জানান, এই ঘটনায় নিহত রফিকুজ্জামান চৌধুরীর স্ত্রী আফিয়া বেগম চৌধুরী বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা তদন্ত স্বাপেক্ষে আসামীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার সকালে বাড়ির ভুমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে চাচাতো ভাই তনজু মিয়া গংদের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে আকস্মিক হামলার স্বীকার হন বিয়ানীবাজারের দুবাগ ইউনিয়নের উত্তর দুবাগের বাসিন্দা ষাটোর্দ্ধ রফিকুজ্জামান চৌধুরী। আকস্মিক হামলায় তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রফিকুজ্জামানকে মৃত ঘোষণা করেন।এরপর পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে এবং ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে তনজু মিয়া ও তাঁর স্ত্রীকে আটক করে। তবে নিহতের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন না থাকায় পুলিশ এটাকে স্বাভাবিক মৃত্যু হিসেবে ধরে নিয়ে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত স্বাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জুবের আহমদ।