আবারও সুযোগ আসছে ওয়ার্ক পারমিটে ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের

ukডেস্ক:: ওয়ার্ক পারমিটে ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ আসছে আবার! আগামী বছর থেকে এ নিয়ম কার্যকর হওয়ার কথা। ওয়ার্কপারমিট ভিসায় যারা ব্রিটেনে স্থায়ী ভাবে বসবাস করতে চান তাদেরকে বার্ষিক ৩৫ হাজার পাউন্ড আয় দেখাতে হবে। শুধু তাই নয়, এখন থেকে ৫ বছর ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় কাজ করার পর স্থায়ীভাবে বসবাসের আবেদনের যোগ্য হবেন।

হোম সেক্রেটারী তেরেসার বরাত দিয়ে বিবিসি জানায় ২০১৬ সালের এপ্রিল থেকে এই নিয়ম চালু হবে। এ নিয়মের ফলে নন ইউরোপিয়ানরা ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় এসে সেটেল্টমেন্টের আবেদন উল্লেখ যোগ্য হারে কমে যাবে।

অতীতে ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় এসে ৫ বছর থাকার পরই স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য আবেদনকরার সুযোগ ছিল। ২০১০ সালে এ সুযোগ কম করে দেওয়া হয়। নতুন করে আবার ২০১৬ সাল থেকে এই নিয়ম চালু করা হচ্ছে।

তবে, এবার ৫ বছর বসবাসের পাশাপাশি বাধ্যতামূলক ভবে বছরে ৩৫ হাজার পাউন্ড আয় দেখাতে হবে। এ নিয়মের পর ওয়ার্কপরমিট ভিসায় ব্রিটেনে যাওয়ার সুযোগ বাড়লেও স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ কমে যাবে।

উল্লেখ্য, ব্রিটিশ কোয়ালিশন সরকার ক্ষমতায় এসেই ঘোষণা দিয়েছিলো, গণহারে অভিবাসী আগমন ঠেকাতে। এ লক্ষ্যে লিবডেম-কনজারভেটিভ জোট সরকার বেশকিছু পদক্ষেপও গ্রহন করে। সরকারের এই পদক্ষেপ ফলপ্রসূ হয়েছে বলে সম্প্রতি দাবী করেছেন, দেশটির হোম সেক্রেটারী থেরেসা মে এমপি। সম্প্রতি এক জরিপে উঠে এসেছে, ব্রিটেনে অভিবাসীদের আসা ও যাওয়ার হার এক তৃতীয়াংশ হ্রাস পেয়েছে।

অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিক্স (ওএনএস) এ তথ্য জানিয়েছে। ওএনএস এর তথ্য মতে, আগের বছরের ২ লাখ ৪৭ হাজার অভিবাসীদের তুলনায় ২০১৩ সালে নিট মাইগ্রেশন কমে ১ লাখ ৬৩ হাজারে দাঁড়িয়েছে। ব্রিটেনে আগত অভিবাসীদের সংখ্যা আগের বছরের ৫ লাখ ৫৮ হাজারের তুলনায় এ সময় কমে ৫ লাখ ১৫ হাজারে নেমে আসে। একই সঙ্গে ব্রিটেন ত্যাগকারী অভিবাসীদের সংখ্যা আগের বছরের ৩ লাখ ৪২ হাজারের তুলনায় ৩ লাখ ৫২ হাজারে উন্নিত হয়েছে। নিট মাইগ্রেশন ৩৪ শতাংশ কমে যাওয়ার পেছনে এই হিসেব গুলোই মূখ্য ভূমিকা পালন করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।