বিয়ানীবাজারের অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট নাজিমুদ্দিন হত্যায় জাতিসংঘের নিন্দা

NEWডেস্ক: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট নাজিমুদ্দিন সামাদকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করায় নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ।

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তদন্তের মাধ্যমে এই হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে তাদের বিচারের আহ্বান জানান বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক রবার্ট ওয়াটকিনস।

তিনি বলেন, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট হত্যায় সম্প্রতি ছেদ পড়লেও ‘এই হামলায় প্রতীয়মান হচ্ছে যে, বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা হরণের ক্রমবর্ধমান প্রবণতার অংশ হিসেবেই নতুন এই হত্যাকা-।

তিন বছর আগে এ ধরনের হত্যাকা-ের শুরুর পর থেকে জাতিসংঘ উদ্বেগ প্রকাশের পাশপাশি তদন্তের মাধ্যমে বিচারের আহ্বান জানিয়ে আসছে বলে উল্লেখ করন তিনি।

ঝুঁকির মুখে থাকা অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের ‘পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত’ করতে আবারও নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর প্রতি আহ্বান জানান জাতিসংঘ প্রতিনিধি।

তিনি বলেন, এর মধ্য দিয়েই দেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত হবে। কারণ গণতান্ত্রিক সমাজে এটার মূল ভিত্তি।

বুধবার রাত ৯টার দিকে বাসায় ফেরার সময় সূত্রাপুরের একরামপুরে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সান্ধ্যকালীন বিভাগের ছাত্র ২৭ বছর বয়সী নাজিমকে।

ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে অনলাইনে লেখালেখিতে সক্রিয় ছিলেন নাজিম। ফেইসবুক পাতায় তিনি নিজেকে সিলেট জেলা বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব পরিষদের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে উল্লেখ করেন।