টাইগারদের মলিন হার কিউদের কাছে

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম ::

সরাসরি বিশ্বকাপে খেলতে হলে ত্রিদেশীয় সিরিজটা গুরুত্বপূর্ণ টাইগারদের জন্য। র‌্যাঙ্কিংয়ের উপরে থাকা দল নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারলে সুবিধাজনক স্থানে থাকতে পারতো বাংলাদেশ। কিন্তু বুধবার ডাবলিনে জয় নয়, মলিন হার সঙ্গী হযেছে।নিউজিল্যান্ডের কাছে মাশরাফিদের হারতে হযেছে ৪ উইকেটে।

টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ২৫৭ রান তুলেছিল বাংলাদেশ।এই স্কোরের সঙ্গে আর ২০-৩৫টি রান হলেই হয়ে যেত। যদিও তামিম ও সৌম্য মিলে মোটামুটি ভালো শুরু এনে দিয়েছিলেন । দলের যখন ৬১ রান তখন ব্যক্তিগত ২৩ রানে ফিরেন তামিম।

অনেক দিন রান পেয়েছেন সৌম্য সরকার। এদিন ৬১ রান করেন তিনি।দীর্ঘ ২১ মাস পর ওয়ানডে ক্রিকেটে হাফসেঞ্চুরি পেলেন সৌম্য। সাব্বির এদিনও ছিলেন ফ্লপ। তার ব্যাট থেকে আসে মাত্র ১ রান। তবে মিডল অর্ডারে ভালো করেন মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ। মুশফিকুর রহিম ৫৫ এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৫১ রান করেন।

শেষ দিকে মোসাদ্দেক হোসেনের ৪১ রানের সুবাদে মোটামুটি লড়াকু স্কোরই দাঁড় করে বাংলাদেশ।

তবে এই রান যে কিউই শক্তিশালী ব্যাটিংয়ের কাছে খুব একটা পাত্তা পাবে না, সেটাও অনুমান করে গিয়েছিল। হলোও তাই। জিততে খুব বেশি কষ্ট হয়নি তাদের। ৪৭.৩ ওভার ৬ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় তারা।

যদিও এক পর্যায়ে জয়ের স্বপ্ন দেখেছিল টাইগাররা। তখন ৩০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৪৭ রান ছিল কিউদের।কিন্তু পঞ্চম জুটির দৃঢ়তার কারণে ক্রমেই হতাশা ঘিরে ধরে মাশরাফিদের। ব্রুম-নিশাম মিলে টাইগারদের স্বপ্ন শেষ করে দেন। আস্তে আস্তে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় তারা।

মোস্তাফিজ ছাড়া তেমন ভালো বোলিং কেউ করতে পারেননি। ৯ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজ। ৫৩ রানে ২ উইকেট পান রুবেল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ৫০ ওভারে ২৫৭/৯ (তামিম ২৩, সৌম্য ৬১, সাব্বির ১, মুশফিক ৫৫, সাকিব ৬, মাহমুদউল্লাহ ৫১, মোসাদ্দেক ৪১, মিরাজ ৬, মাশরাফি ১, রুবেল ০*, মুস্তাফজ ০*; রান্স ০/৬৬, বেনেট ৩/৩১, স্যান্টনার ১/৩৭, নিশাম ২/৬৮, সোধি ২/৪০, মানরো ০/১৪)।

নিউজিল্যান্ড: ৪৭.৩ ওভারে ২৫৮/৬ ( নাথাম ৫৪, রনচি ২৭, ইয়র্কার ১৭, টেলর ২৫, রুম ৪৮, নিশাম ৫২ ; মোস্তাফিজ ৩৩/২, রুবেল ২/৫৩)

ফল : নিউজিল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী