চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বাংলাদেশের ইতিহাস

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম ::

১৯৯৮ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির প্রথম আসর বসেছিল বাংলাদেশে। ওই সময় এই টুর্নামেন্টের নাম ছিল আইসিসি নক আউট টুর্নামেন্ট। ২০০২ সালে নাম পরিবর্তন করে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি করা হয়।

২০০৬ সাল পর্যন্ত দুই বছর পরপর এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হতো। ২০০৯ সালের আসরটি অনুষ্ঠিত হয় তিন বছর পর। এরপর থেকে চার বছর পরপর এই টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

শুরুর দিকে আইসিসির পূর্ণ সদস্য দেশগুলো এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতো। ২০০০ ও ২০০৪ সালে সহযোগী দেশকেও এই টুর্নামেন্টে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২০০৯ সাল থেকে আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা আটটি দল এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারে।

২০০০ সালে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অংশ নেয় বাংলাদেশ। সেবার প্রি-কোয়ার্টারফাইনাল পর্বে খেলেছিল টাইগাররা। এরপর ২০০২ সালে গ্রুপ পর্বে খেলেছিল বাংলাদেশ। ২০০৪ সালের আসরেও টাইগাররা গ্রুপ পর্বে খেলেছিল। ২০০৬ সালের আসরে কোয়ালিফায়িং রাউন্ড থেকে বিদায় নেয় বাংলাদেশ।

এরপর র‌্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে দল নির্ধারণ করায় বাংলাদেশ ২০০৯ সাল ও ২০১৩ সালের আসরে অংশ নিতে পারেনি। কিন্তু সম্প্রতি দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলে র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের অবস্থানকে উন্নতি করে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে জায়গা করে নেয় বাংলাদেশ।

আগামী ১ জুন ইংল্যান্ডে শুরু হবে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির অষ্টম আসর। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ইংল্যান্ড ছাড়াও গ্রুপ পর্বে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে টাইগাররা।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বাংলাদেশের ইতিহাস

২০০০-প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল

২০০২-গ্রুপ পর্ব

২০০৪-গ্রুপ পর্ব

২০০৬-কোয়ালিফায়িং রাউন্ড