রাষ্ট্রীয় কোষাগারে আপনের সাড়ে ১৩মণ স্বর্ণ

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম ::

আপন জুয়েলার্সের জব্দ করা ১৩ মণ ৩৫ কেজি স্বর্ণ ও চারশ ২৭ গ্রাম হিরা বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেয়ার কাজ শুরু করেছে  শুল্ক ও গোয়েন্দা অধিদপ্তর। সোমবার সকাল ১১ টা থেকে এ স্বর্ণ জমা দেয়ার কাজ চলছে যা অল্পসময়ের মধ্যে শেষ হবে বলে জানিয়ছেন শুল্ক গোয়েন্দার উপপরিচালক সাইফুর রহমান। রাজধানীর বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণের ঘটনার পর আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের অবৈধ সম্পদের খোঁজে মাঠে নামে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা। এরই অংশ হিসেবে তার প্রতিষ্ঠানের পাঁচটি বিক্রয়কেন্দ্রে গত ১৪ ও ১৫ মে অভিযান চালায় শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর। প্রতিষ্ঠানটির গুলশান ডিসিসি মার্কেট, গুলশান অ্যাভিনিউ, উত্তরা, সীমান্ত স্কয়ার ও মৌচাকের পাঁচটি শোরুমে অভিযান চালিয়ে প্রায় সাড়ে ১৩ মণ সোনা ও ৪২৭ গ্রাম হীরা সাময়িকভাবে জব্দ করা হয়। শুল্ক গোয়েন্দা দপ্তর জানায়, আপন জুয়েলার্সের দেওয়া ১৮২ জনের তালিকার মধ্যে ৮৫ জন গ্রাহককে ২ দশমিক ৩ কেজি স্বর্ণালংকার অক্ষত অবস্থায় ফেরত দেওয়া হয়েছে, যা ওই সব গ্রাহক অলংকার তৈরি ও মেরামতের জন্য দিয়েছিলেন। বাকি সোনার বিষয়ে আপন জুয়েলার্স কোনো বৈধ কাগজ দেখাতে পারেনি। শুল্ক গোয়েন্দার উপপরিচালক সাইফুর রহমান জানান, আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি বিক্রয় কেন্দ্র থেকে উদ্ধার করা ১৩ মন ৩৫ কেজি স্বর্ণ ও চারশ ২৭ গ্রাম হিরা বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেয়ার কাজ শুরু হয়েছে সকাল ১১ টা থেকে। শুল্ক গোয়েন্দার অধিদপ্তরের পাঁচটি দল এসব কাজ করছে। অল্প সয়ের মধ্যে এ কাজ শেষ হবে।’