সালমান শাহ ‘হত্যাকারীদের’ শাস্তির দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম

চিত্রনায়ক সালমান শাহকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে তাঁর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে নগরীতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় নগরীর কোর্ট পয়েন্টে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। স্বর্ণালী সাহিত্য পর্ষদ সিলেট ও বঙ্গবন্ধু লেখক পরিষদ সিলেট বিভাগীয় শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন উভয় সংগঠনের সভাপতি কবি নূরুদ্দীন রাসেল।

সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালিকের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সালমান শাহ’র মামা চলচ্চিত্র পরিচালক আলমগীর কুমকুম।

এতে উপস্থিত ছিলেন সালমান শাহ’র ঘনিষ্ঠবন্ধু হাজী সামছুজ্জামান, ছড়ামঞ্চ সিলেট’র সভাপতি ছড়াকার সিরাজ উদ্দিন শিরুল, দৈনিক যায়যায় দিন’র সিলেট ব্যুরোপ্রধান কাইয়ুম উল্লাস, দৈনিক আলোকিত সময়’র সিলেট ব্যুরোপ্রধান সুলতান সুমন, স্বর্ণালী সাহিত্য পর্ষদ, সিলেট’র সহ-সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহীন ও মো. হেলাল আহমদ, শিল্পী তপন কুমার সাহা, জায়েদ আহমদ চৌধুরী, মো. গোলাম রব্বানী, কবি ফারহানা বেগম হেনা, স্পৃহা থিয়েটার সিলেট’র সাধারণ সম্পাদক সুরাইয়া জামান, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড সিলেট জেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ মো. জহিরুল ইসলাম, সালমান শাহ ঐক্যজোট কেন্দ্রীয় কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশেদ, কবি শফিকুর রহমান শফিক, ছাদেকুর রহমান, তাহের আহমদ, স্বর্ণালী সাহিত্য পর্ষদ সিলেট’র নির্বাহী সদস্য আহমেদ খোকন, এমরান ফয়সল, আজমল আহমদ রোমন, দিলওয়ার হোসেন, যুব সংগঠক আলী হায়দর, ওয়াহিদুর রহমান, আবুল কালাম, মামুন, মো. আজমল আলী, গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি খালেদ হোসেন, জাবেদ আহমদ, খালেদ সাইফুল্লাহ, রেজওয়ান আহমদ, সমাজকর্মী হোসেন আহমদ, আলী আহবাব মাসুম, আফজল হোসেন, গণদাবী পরিষদ নেত্রী নাঈমা বেগম, সাথী আক্তার, হুমায়রা জাহান, লিমন আহমদ ও পারভেজ হাসান সাগর।

এসময় মানববন্ধনে একাত্মতা পোষন করে ব্যানারসহ অংশগ্রহণ করেন- স্পৃহা থিয়েটার সিলেট, বাংলাদেশ শিশুমেলা সোসাইটি সিলেট বিভাগ, হিউম্যান রাইট্স ওয়াচ ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ, সবুজ বাংলা সমাজ কল্যাণ যুব সংঘ সিলেট জেলা, ন্যাশনালিস্ট এ্যাডুকেশন ট্রাস্ট সিলেট জেলা শাখার নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সালমান শুধু সিলেটের সম্পদ নয়, সালমান গোটা রাষ্ট্রের সম্পদ। এ দেশে প্রতিদিন কত খুনিদের বিচার হচ্ছে। অথচ, কোটি মানুষের নন্দিত অভিনেতা সালমানের বিচারে কেন অবহেলা করা হচ্ছে। তাছাড়া, সালমান হত্যা ঘটনার অন্যতম আসামী রাবেয় সুলতানা রুবি নিজে খুনের সাথে সম্পৃক্ত ছিল বলে জবানবন্দি দিয়েছে। সে আদালতের কাছেও জবানবন্দি দিতে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে। তাহলে আর সালমান হত্যাকারীদের গ্রেফতারে আইনী বাঁধা থাকার কথা নয়। যতদ্রুত সম্ভব রুবিকে দেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের মাধ্যমে তার জবানবন্দি রেকর্ড করত: আসামীদের গ্রেফতার ও দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান বক্তারা। অন্যথায় গোটা বাংলাদেশের সকল সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীল সমাজ নিয়ে দূর্বার আন্দোলনেরও ডাক দেন তারা।