রাখাইনে নিহতের সংখ্যা এক হাজারের বেশি

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম

মিয়ানমারের মানবাধিকার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াং লি বলেছেন, দেশটির মুসলিম অধ্যুষিত প্রদেশ রাখাইনে এরই মধ্যে এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। নিহতদের বেশির ভাগই রোহিঙ্গা মুসলমান বলে জানান তিনি।

এর আগে মিয়ানমার সরকার নিহতদের যে সংখ্যা দিয়েছে তার চেয়ে দ্বিগুণের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য এবং দেশটিতে অতীত সহিংসতার স্বরূপ বিশ্লেষণ করে লি বলেন, রাখাইনে হয়ত এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। উভয় পক্ষের মানুষ মারা গেলেও রোহিঙ্গা মুসলমান অনেক বেশি নিহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

হত্যাকাণ্ড ও নির্যাতন বন্ধে কথা বলার জন্য মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের নেতা অং সান সু চি’র প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

গত মাসের ২৫ তারিখে মিয়ানমারের কয়েকটি পুলিশ চৌকি এবং সেনাঘাঁটিতে হামলার অজুহাতে রাখাইনে সামরিক অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। দেশটির সরকারি হিসেবে এতে অন্তত ৪০০ মানুষ নিহত হয়। এ ছাড়া, আজ শুক্রবার পর্যন্ত আড়াই লাখের বেশি রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে যায়। পালানোর চেষ্টা করতে যেয়েও নারী-শিশুসহ অনেক রোহিঙ্গা মারা গেছেন।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জনগোষ্ঠী বলেছে জাতিসংঘ। যুগ যুগ ধরে মিয়ানমারে বসবাস করার পর তাদেরকে নাগরিকত্ব দেয়া হয় না। এ ছাড়া, মাঝে মাঝেই বৌদ্ধ অধ্যুষিত দেশটিতে গণহত্যাসহ অব্যাহতভাবে নানা নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হতে হয়।

সূত্র: পার্স টুডেৃ