চারাবই-দাউদপুর রোহিঙ্গা কল্যাণ ট্রাষ্টের উদ্যোগে মাবনবন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার:

বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের চারাবই বাজারে চারাবই-দাউদপুর রোহিঙ্গা কল্যাণ ট্রাষ্টের উদ্যোগে মায়ানমানের রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদের মাবনবন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

শুক্রবার প্রতিবাদ মিছিল ও মানবন্ধনের মাওলানা আব্দুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার মানব কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও শেওলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আখতার হোসেন খান জাহেদ।

মানবন্ধনে অন্যানের মধ্য বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুল আউয়াল, চারাবই জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুল কাদির, সমাজ সেবক সামছুল ইসলাম সুনাই, হোসেন আহমদ, তফজ্জুল ইসলাম, শামছ উদ্দিন, আব্দুস সুবহান, আব্দুল হক, হেলাল উদ্দিনসহ চারাবই-দাউদপুর গ্রামের সকল যু্বক- মোরব্বিয়ানরা উপস্থিত ছিলেন।

মানবন্ধনে প্রধানি অতিথি বলেন, ‘মিয়ানমারের মুসলমান নর-নারী ও শিশুদের নিষ্ঠুরভাবে গণহত্যা চালানো হচ্ছে। প্রতিদিন গণহারে সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। দেশের সচেতন নাগরিক হিসেবে আমরা মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান নির্যাতন-নিপীড়নের প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমরা চাই মিয়ানমারের গনহত্যা এই মুহুর্তে বন্ধ হোক এবং রোহিঙ্গাদের নিজেদের ভূমিতে নিরাপদে ফেরত নিতে হবে।

এ নির্যাতন ও গণহত্যা বন্ধ করতে হবে। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার ও দেশের জনগণ এখন পর্যন্ত মানবতাকেই প্রাধান্য দিচ্ছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক মহলকে বিবেচনা করতে হবে, জনসংখ্যাবহুল বাংলাদেশের জন্য এটা নানামাত্রিক সংকট সৃষ্টি করতে পারে। তাই জাতিসংঘের অধীনে মিয়ানমারে একটি নিরাপদ জোন করে রোহিঙ্গাদের সেদেশে ফিরিয়ে নিতে হবে।

তারা আরও বলেন, ‘অং সান সু চিকে শান্তিতে নোবেল দেয়া হয়েছে সেটা ফিরিয়ে নেয়া হোক। বক্তারা সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘বিশ্বকে ভালোভাবে অবহিত না করলে মিয়ানমারের হিংস্র থাবা থেকে মুসলমানদের গণহত্যা কোন মতেই বন্ধ করা সম্ভব হবে না। তাই আমাদের এলাকার সকল প্রবাসীরা রোহিঙ্গাদের পাশে দাড়ানোর আহব্বান জানাচ্ছি।