আজ লন্ডনে বাংলা গানের উৎসব

লন্ডন প্রতিনিধি ::

ইস্ট-লন্ডনের পপলার ইউনিয়নে আজ শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় অনুষ্ঠিত হবে বাংলা গানের উৎসব। ঐতিহাসিক হাউস অব কমন্সে বিশেষ অধিবেশনের পর  সৌধ আয়োজিত তিন মাসব্যাপী বাংলা সংগীত উৎসবের আজ হবে সপ্তম অধিবেশন।

অনুষ্ঠানে ব্রিটেনে বড় হওয়া মেধাবী শিশু ও কিশোর শিল্পীরা  অংশ নিয়ে বিবর্তন-বৈচিত্র্যে ভরপুর বাংলা গানের বিভিন্ন বর্গ ও পর্বের উপস্থাপন করবে।  শিশু শিল্পীরাই এতে গাইবে। নিজেদের মতো গবেষণা করে  স্ক্রিপ্ট রচনা করবে এবং পুরো অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করবে।

রিহার্সালের দৃশ্যশুধু শিশু-কিশোরদের দিয়ে একটি আদ্যোপান্ত বাংলা গানের অনুষ্ঠান বিলাতে এই প্রথম। ব্রিটেনে জন্ম ও বেড়ে ওঠা বাঙালি তরুণ ডায়াস্পোরাদের নিয়ে এই অভিনব অধিবেশনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী ড. ইমতিয়াজ আহমেদ। অনুষ্ঠানে কীর্তন ও লোক-সংগীত থেকে শুরু করে পঞ্চকবি ও আধুনিক গানের পাশাপাশি থাকছে ঐকতানে দল সংগীতও।

সৌধ পরিচালক টি এম আহমেদ কায়সার জানান,  ‘নানা কারণেই এই সেশন এ দেশের সংগীত দর্শকদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। এ দেশে নানা রকম সীমাবদ্ধতার মাঝেও এই তরুণ শিল্পীরা যেভাবে বাংলা গানকে ভালোবেসেছে এবং আরও অন্যান্য মিউজিক শেখার পাশাপাশি যে নিষ্ঠা নিয়ে বাংলা গান পরিবেশন করে চলেছে, তা রীতিমতো মন্ত্রমুগ্ধ করে দেয়ার মতোই। এই গান শুনতে আসা দর্শকদের কিছুতেই মনে হবে না যে,  তারা অপরিণত শিল্পীদের গান শুনছেন।  যেকোনো সফল সংগীতানুষ্ঠানের পর দর্শকেরা যে আবেগ আর মুগ্ধতা নিয়ে হল থেকে বের হন,  ঠিক একই রকম অনুভূতি নিয়েই তারা বাড়ি ফিরবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

কায়সার আরও বলেন,  বাংলা সংগীতে আমরা যেভাবে লিগেসি বিস্তার করেছি,  তাতে মনে হচ্ছে অচিরেই আমাদের কারির মতোই এই সংগীতও ব্রিটিশ মূলধারার সংগীতের অংশে পরিণত হবে। শিশু–কিশোরদের এই বিশেষ ব্যতিক্রমধর্মী অধিবেশন পরিকল্পনা, সমন্বয়, পরিচালনা ও রিহার্সালের মতো কায়িক ও মানসিক পরিশ্রমের দায়িত্ব সানন্দে গ্রহণ করায় তিনি ড. ইমতিয়াজ আহমদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।