জাফলংয়ে পাথর তুলতে গিয়ে ফের তরুণীর মৃত্যু

সিলেটের কানাইঘাটে নদীর তীর থেকে পাথর তুলতে গিয়ে ভূমিধসে ছয়জনের মৃত্যুর রেশ কাটতে না কাটতে আবারও ভূমিধসে এক তরুণীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার সকালে জাফলংয়ের মন্দিরজুম এলাকায় পাথর তুলতে গিয়ে গর্ত ধসে তার মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও তিনজন।

গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলওয়ার হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের নাম শম্পা দাস। তিনি নেত্রকোণার শ্যামপুর এলাকার রনজিত দাসের মেয়ে। বাবার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তিনি জাফলংয়ের মোহাম্মদপুরে থেকে বাবার সঙ্গে পাথর উত্তোলন শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন।

ওসি জানান, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মন্দিরজুম এলাকায় গর্ত থেকে পাথর তুলছিলেন শম্পা ও কয়েকজন শ্রমিক। এ সময় হঠাৎ গর্ত ধসে শম্পার উপরে পড়লে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও তিনজন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

গর্ত করে পাথর উত্তোলনের ফলে সিলেটে বিভিন্ন সময় অনেক শ্রমিক মারা যান। গত ১১ মাসে পাথর তুলতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে ২৯ জনের। সর্বশেষ গত সাত নভেম্বর কানাইঘাটে মারা গেছে চার মাদ্রাসাছাত্রসহ ছয়জন।