ভূমধ্যসাগরে ৩১ শরণার্থীর প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

ভূমধ্যসাগরে লিবিয়ার পশ্চিম উপকূলে শরণার্থী বোঝাই একটি রাবারের নৌকা ডুবে অন্তত ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে আরও দুইশ জনকে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, শনিবার ত্রিপোলির পূর্বাঞ্চলের গারাবুলি উপকূলের কাছে ইউরোপের উদ্দেশে রওনা দেয়া শরণার্থী বোঝাই একটি নৌকা ডুবে যায়। পাশেই ভাসমান শরণার্থীদের আরেকটি নৌকা উদ্ধার করে লিবিয়ার কোস্টগার্ড। কোস্টগার্ড যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছায় তখন একটি নৌকা পুরোপুরি ডুবে গেছে বলে জানান কোস্টগার্ডের এক কমান্ডার। তিনি বলেন, ‘নৌকাটি ডুবে গিয়েছিল এবং যাত্রীরা সমুদ্রে ছড়িয়ে পড়েছিল। তারা সাঁতরে উপকূলের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। আমরা সমুদ্র থেকে প্রায় ৬০ জনকে জাবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হই। তারা ডুবে যাওয়া নৌকার ভাসমান বিভিন্ন জিনিস আঁকড়ে ধরে প্রাণ বাঁচায়। অন্য নৌকায় থাকা আরও ১৪০ জনকেও উদ্ধার করা হয়েছে।’

এখন পর্যন্ত ৩১টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। যেগুলোর মধ্যে বেশ কয়েকটি শিশু। মৃতদেহগুলো ত্রিপোলির নৌঘাঁটিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

শারণার্থী বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থার তথ্যানুযায়ী, এ বছর সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করতে গিয়ে প্রায় তিন হাজার শরণার্থী ডুবে মারা গেছে বা নিখোঁজ হয়েছে। এদের বেশির ভাগই লিবিয়া হয়ে ইতালি পৌঁছানোর চেষ্টা করেছে।