আমার যা অর্জন তাঁর সবগুলোর ভাগিদার আপনারা : শিক্ষামন্ত্রী

সুফিয়ান আহমদ ::
হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বিশ^ স্বীকৃতি আদায়ের নেপথ্য রূপকার, ওয়ার্ল্ড এডুকেশ কংগ্রেস গ্লোবাল এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত ও দ্বিতীয় মেয়াদে ইউনেস্কোর ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ই-৯ এর প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার বিরল গৌরব অর্জন করায় বিয়ানীবাজারের কৃতি সন্তান, বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এম.পিকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

শনিবার বিকেলে পৌরশহরের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সম্মুখে বিয়ানীবাজার পৌরসভার উদ্যোগে আয়োজিত সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ও সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ বলেন, “আমি আপনাদের সন্তান, আপনাদের কারণে আমি আজকের এই অবস্থানে এসেছি। আপনারা আমাকে সাহায্য-সহযোগীতা না করলে আজকের এই অবস্থানে আসতে পারতাম না। তাই আমার যা অর্জন তাঁর সবগুলোর ভাগিদার আপনারা। আমি আমার সব অর্জন আপনাদের উৎসর্গ করলাম”।
বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর’র সভাপতিত্বে ও পরিচালনায় নাগরিক সংবর্ধনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খান, বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মু: আসাদুজ্জামান, শিক্ষাবিদ আলী আহমদ ও বিরাজ কান্তি দেব, বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাসিব মনিয়া, বর্ষিয়ান আওয়ামী লীগ নেতা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান তারা মিয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার হাজী এম এ কাদির, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুফতি শিব্বির আহমদ ও ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা লিমা।
বিয়ানীবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর হাফিজ এমাদ আহমদের পবিত্র ক্বোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া সংবর্ধনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন, প্রচার সম্পাদক হারুনুর রশিদ দিপু, শিক্ষামন্ত্রীর একান্ত সহকারী সচিব দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, দুবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদ, বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজের প্রভাষক প্রিয়তোষ চক্রবর্তী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন।
শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ আরো বলেন, ২শত ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে রাস্তা সংষ্কার কাজ শীর্ঘ্রই শুরু হবে। আমাদের দীর্ঘদিনের রাস্তাঘাটের সমস্যা সমাধান হবে। তিনি বলেন, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বশীলদের আহবান জানাচ্ছি দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ শুরু করার। কাজের মান যেন বজায় থাকে এবং সঠিকভাবে কাজ সম্পন্ন হয় সেদিকে দৃষ্টি রাখবেন। কিন্তু কোনভাবে নি¤œমানের কাজ হলে পার পাবেন না, বলেও হুশিয়ারী দেন মন্ত্রী। শিক্ষামন্ত্রী ছাত্রলীগের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা শিক্ষাজীবনটি সুন্দর করে গড়ে তুলুন। কোন অবস্থায় মাথা গরম করবেন না। সুন্দরভাবে নিজেদের গড়ে তুলে দেশের উন্নয়নের আত্মনিয়োগ করুন। এখানে লিটু ও আনোয়ার মারা গেছে। এরা আমাদের সন্তান ছিল। যারাই তাদের হত্যা করেছে, তারা দুনিয়া ও আখেরাতে শান্তি পাবে না, তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে। বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিয়ে আসার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করে তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।