বিয়ানীবাজারের কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন হেলাল খান

কেন্দ্রীয় জাসাস’র সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপি’র নির্বাহী সদস্য চিত্রনায়ক হেলাল খান বলেছেন, আওয়ামী লীগ গুম ও খুনের রাজনীতিতে বিশ্বাসী বলেই দেশে আজ গণতন্ত্র নেই, সুবিচার নেই। সরকারের নির্যাতন আর অবিচারের কারণেই বিএনপি শক্তিশালী হচ্ছে। তিনি বলেন, মানুষ বিএনপিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়। তাঁর দীর্ঘ রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের বিবরণ তুলে ধরে তিনি বলেন, যেখানে থাকি, যে দায়িত্বে থাকি বিয়ানীবাজারের মানুষের জন্য কাজ করবো। বিয়ানীবাজারে উন্নয়নের প্রয়োজন। এখানকার রাস্তা-ঘাটের যে অবস্থা তাতে চলাচল করাই দায়। আজ বুধবার বেলা দু’টায় স্থানীয় একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টের হলরুমে বিয়ানীবাজারে কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। হেলাল খান বলেন, ‘আমি আশাবাদি বিএনপি এ আসনে আমাকে মনোনয়ন দেবে। কেন্দ্রের নির্দেশে বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জের প্রতিটি এলাকায় কাজ শুরু করেছি। তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে এবং একই সাথে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। নির্বাচন হলে এ আসনে ধানের শীষ প্রতীখ থাকবে এবং সেই প্রতীকটি বিএনপি’র কোন ত্যাগী নেতার হাতেই থাকবে এটা নিশ্চিত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা যুবদলের সভাপতি এমএ মান্নান, বিএনপি নেতা আবুল ফাত্তাহ বকশি, বিয়ানীবাজার উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি হাজি আব্দুল মতলিব, মহানগর বিএনপি সহসভাপতি আব্দুল ফাত্তাহ বকশী, সহ সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ছিদ্দিক আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক ফয়ছল উদ্দিন, সহ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, যুবদল সভাপতি জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

কামাল হোসেনের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাসুক আহমদ, সাইফ উদ্দিন, আলী হাছান, দৌলা হোসেন সুবাষ, হোসেন আহমদ দোলন, সাইফুল ইসলাম, আব্দুল আজিজ, আলতাফ হোসেন, সেলিম উদ্দিন, আব্দুল মান্নান, ময়নুল ইসলাম, জাবেদুল হক দুদু, শাহজাহান আহমদ, ওয়াহিদুর রহমান, ফখর উদ্দিন, নাজিম উদ্দিন, জব্বার হোসেন, জুবের আহমদ, আব্দুল হালিম রানা, এম আলম হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।