গোলাপগঞ্জে গৃহবধূ খুনের ঘটনায় মামলা, আটক ১

গোলাপগঞ্জ ::

গোলাপগঞ্জ পৌর এলাকার দাড়িপাতনে গৃহবধূ সুমি বেগম শাম্বু (৩৫) খুনের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) রাতে নিহতের স্বামী রিপন আহমদ বাদী হয়ে (মামলা নং ৭/১২-০৪-১৮) গোলাপগঞ্জ থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় নিহত সুমির চাচা আজীব আলী (৭০) ও চাচী হাসনা বেগম সহ ৭ জনকে আসামী করা হয়। এদিকে আটককৃত আজীব আলীর স্ত্রী হাসনা বেগমকে (৩৫) কে শুক্রবার গ্রেপ্তার দেখিয়ে কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মামলার অন্য আসামীরা হচ্ছেন – একই গ্রামের আজীব আলীর ছেলে এমাদ হোসেন (২৮), শিবলু আহমদ (২৯), দোলাল আহমদ (২৬), বেলাল আহমদকে (২৮) ও একই গ্রামের মজাইদ আলীর ছেলে লোকমান আহমদ (৪২)।

উল্লেখ যে, গত বুধবার (১১ এপ্রিল) সকালে উপজেলার দাড়িপাতন গ্রামে ভূমি সংক্রান্ত জেরে দুই পক্ষের মধ্যে ঝগড়া সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে আজীব আলীর পুত্র দুলাল আহমদ সুমি বেগমের মাথায় আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন।

তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এসময় নিহত সুমির বৃদ্ধা মা লুৎফা বেগমের পা ভেঙ্গে দেয় আজিব আলীর ছেলেরা। নিহত গৃহবধূ দাড়িপাতন গ্রামের মৃত সওয়াব আলীর মেয়ে ও রিপন আহমদের স্ত্রী এবং ২ সন্তানের জননী।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম ফজলুল শিবলী মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পর আজীব আলীর স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।