বিশ্বনাথে অপহরণ মামলায় প্রেমিকসহ গ্রেপ্তার ২

বিশ্বনাথে অপহরণ মামলায় সহযোগী সহ শাহান আলী (২২) নামের প্রেমিককে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। শাহান উপজেলার লামাকাজি ইউনিয়নের মাঝেরগাঁওয়ের মৃত ইয়াদ উল্লার ছেলে। তার সহযোগী হচ্ছে একই গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে শাহিন মিয়া (২৬)।

রোববার (২২ এপ্রিল) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের দুজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে পালিয়ে যাবার ৫ দিন পর শনিবার রাতে প্রেমিক শাহান ও তার সহযোগী শাহিন এবং শাহানের প্রেমিকা সেবিকা পালকে (১৪) জগন্নাথপুর থেকে উদ্ধার করে থানা পুলিশ। শনিবার রাতে সেবিকার বাবা লামাকাজি ইউনিয়নের দিঘলী গ্রামের অধির পাল থানায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-২২)। গ্রেপ্তার হওয়া দুজন ছাড়াও ওই মামলায় জামাল উদ্দিন নামের এক অটোরিকশা চালককেও আসামি করা হয়েছে। ১৬ এপ্রিল থানায় মেয়ে নিখোঁজের জিডি করেন অধির পাল, (জিডি নং-৮২৩)।

এ ব্যাপারে থানার ওসি তদন্ত দোলাল আকন্দ বলেন, কিশোরী বলেছে শাহান আলীকে সে ভালোবেসে এবং তার হাত ধরেই পালিয়েছে। তবে কিশোরীর পিতার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই মামলাটি নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জবা দেব জানান, ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করার জন্যে মেয়েটিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ‘ওসিসি’তে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া বয়স নির্ণয়ে সন্দেহ থাকায় আবেদন করেছেন বলেও জানান তিনি।

 

সূত্র : সিলেটটুডে