মাথিউরায় আন্তঃইউনিয়ন ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন, চ্যাম্পিয়ন ৩নং ওয়ার্ড

বিয়ানীবাজারের মাথিউরায় আন্তঃইউনিয়ন ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ৩নং ওয়ার্ড। বুধবার মাথিউরা ইউনিয়ন উন্নয়ন সংস্থা ইউকে’র আয়োজনে এবং সোস্যাল ওয়েল ফেয়ার অর্গানাইজেশন মাথিউরার ব্যবস্থাপনায় মাথিউরা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় ১-০ গোলে পরাজয় বরণ করে ১ নং ওয়ার্ড।

দর্শকপূর্ণ ফাইনাল খেলায় শুরু থেকেই দুই দল আক্রমন প্রতি আক্রমনে রক্ষণ ভাগকে ব্যতিব্যস্ত রাখে। প্রথমার্ধে একাধিক আক্রমন করলেও কোন দল গোল পায়নি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যায় ৩নংওয়ার্ড। গোল কিপার ঠিক মতো বল হাতে জমাতে না পারায় খেসারত দেয় ১নং ওয়ার্ড। হাত ফসকে বল বেরিয়ে গেলে ফাকায় থাকায় অতিথি খেলোয়াড় আড়াআড়ি বলিতে বল জালে জড়ান। দ্বিতীয়ার্ধের শেষভাগে প্রতিপক্ষের গোলপোস্টের সামনে বাধা পান ১ নং ওয়ার্ডের ফরোয়ার্ড জিল্লুর। তাকে ফাউল করা হয়েছে জানিয়ে পেনাল্টি চায় ১ নং ওয়ার্ড। রেফারি তাতে কর্ণপাত না করলে ১নং ওয়ার্ড খেলতে অস্বীকৃতি জানায়। এক পর্যায়ে আলো কমে আসলে রেফারি শেষ বাজি বাজান।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাফুফের কার্যনির্বাহী সদস্য ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন সেলিম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, মাঠের খেলার রেফারি সিদ্ধান্তই শেষ সিদ্ধান্ত। আমরা মাঠে এসব মেনে নিতে পারিনা বলে পিছিয়ে যাচ্ছি। তিনি বিদেশী খেলোয়াড়দের মান ভাল নয় জানিয়ে বলেন, এদের চেয়ে আমাদের দেশের খেলোয়াড়দের মান অনেক ভাল। দেশের খেলোয়াড়দের এরকম টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ করে দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাথিউরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সিহাব উদ্দিন, মেডিকেল ডোনার বদরুল আমিন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী গিয়াস উদ্দিন, ক্রীড়ানোরাগী আতাউর রহমান আতা, আব্দুর রব কছির আলী, আবুল হোসেন, ফজলুর রহমান প্রমুখ।

অতিথিরা চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের ম্যানেজার ও দলপতির হাতে ট্রফি ও প্রাইজমানি তুলে দেন।