বিয়ানীবাজারে মোটরসাইকেল চুরি থামছে না

স্টাফ রিপোর্টার ::

প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটের উপজেলা বিয়ানীবাজার। গত কয়েক বছরে এখানে বেড়েছে মোটরসাইকেল চোরদের উৎপাত। সম্প্রতি এ উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ। মোটরসাইকেল রেখে দোকানে বা কাজে গেলে ফিরে এসে তা আর পাওয়া যায়না। মূহুর্তের মধ্যে উধাও হয়ে যায় বাইক।

বিয়ানীবাজারে প্রতিনিয়ত মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। তবে চুরি ঠেকাতে থানা পুলিশ সক্রিয় থাকলেও এক্ষেত্রে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে চোরচক্র। বিভিন্ন পদ্ধতিতে তারা বিভিন্ন স্থান হতে মোটরসাইকেল নিয়ে উধাও হচ্ছে।

বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ জানিয়েছে, চুরি যাওয়া গাড়ি ও চোরদের ধর‍তে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। কয়েকদিন আগে বেশ কয়জন মোটরসাইকেল চোরকে ধরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ সক্রিয় থাকার পরও থেমে নেই চোর চক্র। সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের ধারণা এই চোরদের পিছনে শক্তিশালী চক্র কাজ করছে।

গত (২ সেপ্টেম্বর) বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চুরি হয় একটি ডিসকভার মডেলের মোটরসাইকেল। সেই চুরির রেশ না কাটতেই বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাত আটটায় আবারো বিয়ানীবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে থেকে চুরি হয় আরেকটি মোটরসাইকেল। যার নম্বর সিলেট-হ ১৪-০৭৩৮।

চুরি হওয়া মোটরসাইকেলের মালিক বিয়ানীবাজার উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আবুল হুসেন খসরু। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।