বিয়ানীবাজারে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মানিক আলীকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ.কম ::

মুক্তিযুদ্ধে দুই চোখ ও এক হাত হারানো যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা বিয়ানীবাজার উপজেলার সন্তান মানিক আলী আর নেই (ইন্না…রাজিউন)।

রবিবার (২০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে নয়টায় রাজধানী একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

সোমবার (২১ অক্টোবর) বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের বাড়ুদা জামে মসজিদে সকাল ১১টায় তাঁর জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে মসজিদের পাশে পারিবারিক কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁকে সমাহিত করা হয়।

জানাযায় উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এম. এ কাদির, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আহমেদ ফয়সাল, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সেলিম উদ্দিন আহমদ।

মুক্তিযোদ্ধা মানিক আলী হৃদরোগে আক্রান্ত হলে রাজধানীর ইব্রাহিম কার্ডিক হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। সেখানে রবিবার সকালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ পুত্র, ৫ কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী ও আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

এর আগে গত শনিবার হাসপাতালে তাঁকে দেখতে যান মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। এ সময় তিনি তাঁর শয্যার পাশে কিছু সময় কাটান এবং চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন।

কমান্ডার মানিক আলী ১৯৫৬ সালের ১ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মরহুম সুরুজ আলী।