বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ: মামলা

বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগের কাউন্সিলকে সামনে রেখে উপজেলা সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু করেছে একটি মহল। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে তিনি স্থানীয় থানায় একাধিক সাধারণ ডায়রী করার পাশাপাশি সিলেটের আদালতে মামলাও দায়ের করেছেন।

আগামী ১৪ নভেম্বর দীর্ঘ ১৬ বছর পর এ উপজেলায় আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অনুষ্টিত হচ্ছে। বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগের আসন্ন কাউন্সিলে সভাপতি পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতার জন্য প্রচারণা চালালেও মূল লড়াইয়ে রয়েছেন বর্তমান সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান খান। তবে কাউন্সিলের হাতেগোনা সময় দূরত্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ আরো বিভিন্ন উপায়ে গত কয়েকদিন থেকে সভাপতি প্রার্থী আব্দুল হাছিব মনিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু হয়েছে।

এসব ঘটনায় তিনি বিয়ানীবাজার থানায় একাধিক সাধারণ ডায়রী করেছেন। সর্বশেষ সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েলের বিরুদ্ধে যুগ্ম জেলা জজ ৩য় আদালতে ২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক পাভেল মাহমুদ বলেন, আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে হঠাৎ কাঁদা ছুড়াছুড়ি শুরু হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের এই সংগঠনকে দুষ্কৃতিকারীরা বিতর্কিত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত। যারা এমনটি করছে তাদের বর্জন না করলে রাজনীতি দূষিত হয়ে পড়বে।

আব্দুল হাছিব মনিয়া জানান, সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর যারা দলীয় প্রভাব খাটিয়ে আখের গোছাতে ব্যর্থ হয়েছে, তারা এমন জগণ্য অপপ্রচার করছে। মুক্তিযুদ্ধে হয়রানীর শিকার হওয়া তার পরিবারের বিরুদ্ধে এমন বিভ্রান্তিমূলক কর্মকান্ড দলকে হেয় প্রতিপন্ন করার শামিল। বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অবণী শংকর কর বলেন, থানায় দায়ের করা সাধারণ ডায়রীর তদন্ত চলছে।