বিয়ানীবাজারে সেনাবাহিনীর টহল শুরু

বিয়ানীবাজারকণ্ঠ ডেস্ক ::

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল থেকে বিয়ানীবাজারে টহলে নেমেছে সেনাবাহিনী। পৌরশহরসহ উপজেলার সর্বত্রই টহল দেবে সশস্ত্র এই বাহিনী। এ সময় বিদেশ থেকে ফেরত আসা ব্যক্তির অবস্থান নির্ণয় ও তাঁদের নিজ নিজ অবস্থানে কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করাই হবে সেনাবাহিনীর মূল লক্ষ্য। সোমবার আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ লক্ষ্যের কথা বলা হয়।

এদিকে, সেনাবাহিনী টহলের বিষয়টি নিশ্চিত করে বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী মাহবুব বৃহস্পতিবার থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত একসঙ্গে দুজন চলাচল এবং জরুরী প্রয়োজন ব্যতিত কেউ ঘরের বাইরে বের না হওয়ার নির্দেশ দেন। এছাড়া আজ বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত গণপরিবহন (বাস, সিএনজি ও মাইক্রো) চলাচলেও নিষেধাজ্ঞাসহ কোন ধরনের গনজমায়েত ও চায়ের দোকানে আড্ডা এবং টিভি না রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী মাহবুব বলেন, মূলত সবার জন্য হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার বিষয়টি জোর দিতে সেনাবাহিনী তৎপরতা চালাবে। দুইজনকে একসাথে চলতে দেয়া হবে না। মোটর সাইকেলে একজন চলাচল করলেও তাকে জবাবদিহি করা হবে। কারণ জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ যাতে বাড়ি থেকে বের না হয় সে বিষয়টি দেখবে সেনাবাহিনী।

এদিকে, এর আগে গত রোববার থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিদের্শনায় বিয়ানীবাজার পৌরশহরসহ সকল হাট-বাজারে গণজমায়েত ও হোটেল রেস্তুরায় টিভি চালানো বন্ধ করা হয়। রেস্তুরা খোলা থাকলেও সেখানে বসে খাবার খাওয়া বন্ধ ঘোষণা করেছেন। তবে ঔষধ ও নিত্যপণ্যের দোকান (কাঁচাবাজার, মুদি ও মাছবাজার) খোলা রাখা যাবে।